প্রেম-অপ্রেম

 


অব্যক্ত যন্ত্রনা; গার্হ্যস্থ নিঃশব্দে পুড়ে চলে;
নির্জন দুপুরগুলোতে
পরকীয়া ধীরে ধীরে যৌবন লাভ করে।
রাত্রির নিঃসঙ্কোচ নগ্নতায়
সতী হয়ে ওঠা তো
আমার নখের আগায়।
কুৎসিত লাস্যে “না পাওয়া”গুলো হঠাৎ রূপ পায়।
বলো, এই সুখকে কি অবহেলে যেতে দিতে পারা যায়?
মেঘের পর্দায় আগুন লেগেছে আজ বহুদিন
রক্তাক্ত বৃষ্টিরা বাষ্পীভূত হয় বিছানার ভাঁজে।
জ্বলতে থাকা আঁচে
স্বামীর পুরুষালী হাত আমার কাছে নপুংসক সমান !
প্রেম বহুদিন অপেক্ষা করেছিল আনাচে কানাচে।

পরকীয়া প্রেম? নাকি প্রেমহীন যৌনতা?
খুলতে গিয়ে জটিল জ্যামিতিতে আরও সঙ্ঘবদ্ধ হয়েছে গিঁট;
আদরের রাত্রিতে আমার স্ফীত উদরের লাব ডুব
ব্যঙ্গ করে বলে উঠেছে,
“প্রেম ও যৌনতা একই মুদ্রার এপিঠ – ওপিঠ”
 

 

 

 

 

Share on Facebook
Share on Twitter
Please reload

Featured Posts