নবযৌবনা

 

 

বৃষ্টি পরে টাপুর টুপুর,
ওরে, ও নব যৌবনা---
এই দেখ, তোর রুপোর নুপুর।
অনেক তো হলো পুতুল খেলা,
চল, পড়বি শাড়ি পলাশী রঙা,
বয়ে যায় যে, গোধূলি বেলা।
আকাশ কালোয় মুক্ত বেণী,
তারা বোনা, জোছনা শাড়ি,
ওইরূপে তোকে যে খুব চিনি।
হঠাৎ কোথাও বজ্রাঘাতে
বিদ্যুতের ওই ঝিলিক জুড়ে,
কোনো এক ধ্বংস লীলা খেলায় মাতে।
প্রমাদ গোণা র শুরু তখন,
ছিন্ন ভিন্ন প্রেমের ডালি,
স্বপ্ন গড়ায় মাটিতে এখন।
আবার কোনো বাদল দিনে,
কনক চাঁপার শৃঙ্গারে যে
নেবো,তোকে পুরোটা কিনে।
লালচে রঙা পুব আকাশে,
বাতাসে তখন ভৈরবী সুরে,
আলো-ছায়ায় প্রকৃতি হাসে।
গুনগুনায় মধুকর, সুরেলা এক কোকিলা
আশ্বাসে আজ সেও প্রকট,
আস্ফালনে, আমি যে একলা।

 

Share on Facebook
Share on Twitter